অবুঝ বউ part-4

অবুঝ বউ
,
Sûmøñ Ãl-Fãrâbî
.
৪ পর্ব
,,
বিকেল হয়ে এলো,,, আমি বসে বসে ফেসবুকিং করছি ,,,,
পুতুল সামনে এসে দাড়ালো ,,,
,
“” কিছু বলবে ??
“” তুমি আমায় আইসক্রিম দিতে চাইছিলে,,,,
“” ফ্রিজে আছে খেয়ে নাও ,,,,
“” তুমি বলছো আমার পছন্দ মতো খাওয়াবে ,,
“” কি ঝামেলায় পড়লাম
“” আমি কিন্তু কান্না করবো,,,,
“” কেন??
“” তুমি আমার উপর রাগ করছো কেন
“” মন ছিলো না ,, আপনার উপর তো আবার রাগ করা যাবে না ,,,
“” কই যাও,,,
“” বাজারে,, আপনার জন্য আইসক্রিম নিয়ে আসি,,,
“” আমিও যাবো ,,,
“” কোথায় ,,,
“” বাজারে ,,,
“” বাজারে মানে ,,,
“” আমি কোনো দিন বাজারে যাই নি ,, আব্বু বলছে তোমার স্বামী তোমাকে সব জায়গায় ঘুরে দেখাবে,,,
“” শ্বশুর মশাই কি পিচ টাই না আপনি আমার কপালে দিছেন ,,,
“” কি হলো,,,
“” কিছু না ,, চলেন মহারাণী ,,,,
“” কোথায় ,,
“” আমার কবরে ,,,
“” তুমি আবার রাগ করছো
“” কই না তো এই তো হেসে হেসে কথা বলছি আমি ,, চলেন বাজারে যাই ,,
্্
।।
,,
এরপর সেই অসম্ভব বস্তু টাকে নিয়ে বাজারে যাই ,,,, বাজারে গিয়ে ও যা করে তা না হয় নাই বলি,,, নয়তো আপনি পাগল নাকি আমি মানসিক রুগী কিছুই বুঝতে পারবেন না ,,,

সন্ধ্যায় বাসায় আসলাম ,,,, এসে রুমে গেলাম ,, ফ্রেশ হয়ে শুইলাম একটু,,,,
একটু আগে মাথাটা যেভাবে চিবিয়ে চিবিয়ে খেয়ে ফেললো,,,,
একটু পরে আম্মু রুমে আসলো ,,,,
“” কি রে ঘুমাইছিস,,,
“” না,,, কিছু বলবে ,,,,
“” পুতুলের আব্বু ফোন করেছিল ,,,
তখন পুতুল ও রুমে আসলো,,,
“” কি বললো,,
“” কাল তোদের নিতে আসবে ,,,
“” সত্যি, কাল আব্বু আসবে ,,
“” হুম ,,,
“” খুব খুশি তাই না ,,,
“” অনেক ,,
“” তোদের কাপড় গুছিয়ে রাখ,,,,,
“” আচ্ছা আম্মু ,,,
“” তুমি হঠাৎ আন্টি থেকে আম্মু ডাকতে শুরু করলে কখন ,,,,
“‘” তোমায় কেন বলবো,,, ভাবিও তো আমার আম্মু কে আম্মু বলে ডাকে ,,,
“” হুম ,, এখন তোরা বসে বসে ঝগড়া কর,, আমি গেলাম ,,,
,,
।।
,,
আম্মু রুম থেকে চলে গেলো, আমি আবার শুয়ে পড়লাম ,,,
“” কি হলো শুয়ে পরলে যে,,
“” তো কি করবো??
“” আম্মু কি বললো শুনো নি,,,,
“” কি??
“” কাপড় গুছাতে বললো,,
“” তো গুছাও তুমি ,,,
“” আমার গুলো তো আমি গুছাইছি,,, তোমার গুলো গুছাও,,,
“” ভাবি কি বলছে ?
“” কি??
“” আমার সব কিছু তোমার ,,,
“” হুম ,,,
“” তো কাপড় গুলো তোমার মনে করে গুছিয়ে ফেলো,,,
“” আচ্ছা ,,, গুছিয়ে কোথায় রাখবো ,,
“” তোমার ব্যাগে,,,
“” ভাবী দেখলে কি বলবে ,,,
“” কি??
“” বলবে তোর ব্যাগে ছেলের কাপড় আসলো কিভাবে
“” বলবে না ,,,
“” বলবে ,, একবার স্কুলের একটা ছেলের খাতা ভুল করে আমার কাছে আসছিলো ,,,, ভাবি সেটা নিয়ে সবাইকে দেখিয়ে বলেছে ছেলের খাতা পুতুল রাণীর কাছে কেন,,, আর অনেক হাসাহাসি ও করেছে ,,,
“” আল্লাহ গো তুমি আমার জন্য ঐই জিনিস বানাইছো,,,, এর তো চুলের নিচে ও ফাকা হাটুর নিচেও ফাঁকা ,,,,
“” ঐ কি বলছো একা একা,,,,
“” কিছু না ,,, বললাম কাপড় গুলো তোমার ব্যাগে রাখো আমি তোমার বাসার সামনে গিয়ে বের করে নিবো,,,
“” আচ্ছা ঠিক আছে ,,,


রাতে খাওয়া করে একটু বাইরে থেকে ঘুরে এসে রুমে আসলাম ঘুমানোর জন্য ,,
“” তুমি এখানে ,,
“” হুম,, আমি এখানে ঘুমাবো,,
“” ওহহ আচ্ছা ,, তুমি শুয়ে পরো,,,

আমি জানি ও আমার সাথে ঘুমাবে না ,, তাই আমি বেলকুনিতে গিয়ে দাঁড়ালাম ,,,
একটু পরে অনুভব করতে পারলাম কেউ আমার পাশে দাড়িয়ে আছে ,,,,
তাই পিছনে তাকালাম ,,,
তাকিয়ে দেখি পুতুল দাড়িয়ে আছে ,,,
পুতুল কে দেখে অনেক টা অবাক হলাম ,,,,


“” তুমি
“” হুম ,,,,
“” ঘুমাও নি ,,,
“” না,,
“” কেন??
“” আমি একা একা ঘুমাতে পারি না ,,,
“” কেন??
“” একা ঘুমালে ভয় পায় ,,,
“” ওহহ,,,
“” এতো দিন আব্বু আম্মুর সাথে ঘুমাতাম ,,,
“” ওহহ,, আচ্ছা আমি আম্মু কে ডাকছি ,, তুমি আম্মুর সাথে ঘুমাও,,
“” আম্মুর রুমে গেছলাম,,, ওনারা ঘুমাইছে,,,
“” তাহলে এখন কি করবে ,,,
“” এখন তোমার সাথে ঘুমাবো,,,
“” ভাবি তোমায় না করছে না ,,,
“” তাতে কি ভাবি ও তো ভাইয়ার সাথে ঘুমায়,,, যদিও মাঝে মাঝে আমি ওদের মাঝে ঘুমাতাম,,,,
“” কি?? ভালো,,,,,, কিন্তু ভাবি তো ওনার স্বামীর সাথে ঘুমাতেন ,,,
“” তো কি,,, আমিও তো আমার স্বামীর সাথে ঘুমাবো
” তাই ,, কে তোমার স্বামী ,,
“” কেন তুমি ,,,
“” ওহহ হ্যা তো ভুলেই গেছলাম ,,,, তো ম্যাম আপনি স্বামী মানে বোঝেন ,,,
“” হ্যা বুঝি তো,,,
“” আচ্ছা বলেন তো দেখি স্বামী মানে কি,,,,
“” স্বামী মানে বর,,,,
“” ইচ্ছে করছে কোমরে দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করি,,,
“” কোমরে দড়ি দিয়ে কেউ আত্মহত্যা করে ,,,
“” তো,,,,
“” গলায় দড়ি দেয়,,, এটাও জানে না হিহিহি,,,,,
“” গলায় দড়ি দিলে ওটাকে কেউ আত্মহত্যা বলে না,,,
“” তো কি বলে,,,,
“” গলায় দড়ি দিলে তো দম বন্ধ হয়ে এমনি মারা যাবে ,,, আর আত্মহত্যা হচ্ছে নিজেই নিজেকে মেরে ফেলা,,, এখন তুমি বলো গলায় যদি দড়ি দেয় তবে কি সে নিজই নিজেকে মারতে পারবে ,,,,
“” না,,, তাহলে কি এটা আত্নহ্ত্যা হলো,,,
“” না,,, কিন্তু আত্মহত্যা তাহলে কি,,,,
“” এসব জানতে হয় না ,,, তবে বর্তমানে মানুষ যেগুলো কে আত্মহত্যা বলে সেগুলো আত্মহত্যা নয়,,, জীবনে কখনো এসব কাজ করবে না বুঝছো,,,
“” হুম ,, কিন্তু কেন??
“” কারণ তোমার জীবনের মূল্য তুমি ছাড়া আর অন্য কেউ বুঝবে না,,, দেখোনা টিবিতে মন্ত্রীরা বডিগার্ড নিয়ে ঘোরে ,,,
“” হুম ,,
“” কেন নিয়ে ঘোরে জানো,,,
“” কেনো,,,
“” কারণ তারা তাদের জীবন নিরাপদ রাখে,,,
“” ওহহ,,,
“” ওদের জীবনটা যতোটা মূল্যবান ঠিক তোমার জীবনটাও ততো টা মূল্যবান ,,, তারা নিজের জীবনের নিরাপত্তার জন্য বডিগার্ড নিয়ে ঘোরে আর সমমূল্য তোমার জীবন তুমি শুধু হতাশা বা কিছু না পাওয়ার জন্য তা বিসর্জন দিবে ,,, মনে রাখবে জীবন আর সম্মান এমন একটা জিনিস যা একবার হারালে শত চেষ্টা করলেও আর ফিরে পাওয়া যায় না ,,,, বুঝছো,,,
“” হুম বুঝছি ,,
“” সো এমন কিছু করবে না যাতে তোমার কোনো ক্ষতি হয়,,,
“” হুম ,,
“” তুমি আমার কথা শুনবে কেন তুমি তো শুধু তোমার ভাবির কথা শোনো,,,
“” ভাবি বলছে তোমার সব কথা শুনতে ,,,
“” তাই ,, আর কি কি বলছে
“” বলছে তোমায় অনেক ভালোবাসতে কিন্তু সেটা তোমায় তোমায় বলা যাবে না আর আমি তোমায় বলবোও না,,,
“” ওহহ ভাবি তোমায় বলছে আমায় ভালোবাসতে আর সেটা আমায় বলা যাবে না ,,,,
“” না,,
“” আচ্ছা তুমি ঘুমাও আমি আসছি ,,,
“” তাড়াতাড়ি আসবে ,,, আমার কিন্তু ভয় পায় ,,,
“” আচ্ছা ,,,


জীবনে আমি এমন একটা মেয়ে চেয়েছিলাম,,,, যাকে আমি যেটা বুঝাবো সেটাই বুঝবে ,, যার কাছে একমাত্র আমি সত্যি বাকি সব মিথ্যা ,,, যারে নিজের মনের রাজরাণী করে রাখা যায়,,, হয়তো আল্লাহ আমায় দিয়েছে ,,,
এখন আমায় এই পিচ্চি মেয়েটাকে যত্নে রাখতে হবে ,,,,
মেয়েটা শুধু বড় হইছে কিন্তু মনটা আজও ছোট আছে ,,,,

“” আসো,,
“” হ্যা আসছি ,,,,,
যাই বউ আমার ভয় পাচ্ছে ,,,,
,,,
,,,
,,
,,
,,,,,,,,,,নিজের জীবনের মূল্য দিতে শিখুন ,,, আবেগের বশে এমন কিছু করবেন না যার ক্ষতিপূরণ করা কখনোই সম্ভব নয় ,,, কিছু করার আগে নিজের বিবেক কে একবার প্রশ্ন করুন ,, যদি বিবেক পজিটিভ বলে তবেই করবেন ,, নয়তো সেই কাজ থেকে বিরত থাকবেন ,, দেখবেন এতে করে আপনার সাথে অনেকেরই কিছু না কিছু ক্ষতির হাত থেকে বেঁচে যাবে ,,,,,,,
,,,,,
,,,,
,,,,
,,,
to be continue ,,,,,

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *