অসাধারণ একটি ভালোবাসার গল্প

অসাধারণ একটি ভালোবাসার গল্প,,

**————————-
**
–আমি কি কখনোই
তোমাকে দেখতে পাবো
না?
– না
– কেন ?? কারন টা
জানতে পারি??
– কারন আমি তোমাকে
হারাতে চাই না,
– মানে কি ?? কি বলো
আবোল তাবোল ??
– হুম। কারন আমাকে
দেখার পর,
আমাকে তোমার মোটেও
ভাল লাগবে না,
আমাকে আর আগের
মত ভালবাসবা না,
আমাকে ধীরে ধীরে
ইগনোর করা শুরু করবা,
তুমি আমার জীবন
থেকে হারিয়ে যাবা।
.
লাস্ট ম্যাসেজটি
সেন্ড করেই মেয়েটি
আর এক মুহুর্তও
অনলাইনে থাকে না।
ছেলেটি কিছুটা রাগ
আর চাপা এক টুকরো
কষ্ট নিয়ে নির্বাক
ইনবক্সের দিকে
তাকিয়ে থাকে।
সে কি কখনোই
মেয়েটির দেখা পাবে
না??
তাদের মাঝে এই এক
সমুদ্র
ভালবাসা কি তাহলে
অদেখাই রয়ে যাবে ??
.
কথা প্রসঙ্গে মেয়েটি
একদিন ছেলেটিকে
বলেছিলো,
“আচ্ছা তুমি তো
আমায় কখনো দেখনি,
বোকা ছেলের মত না
দেখেই ভালবেসেছো,।
আচ্ছা তোমার
কল্পনার চোখে
আমি দেখতে কেমন”??
তখন ছেলেটা
বলেছিলো,
“তুমি দেখতে একদম
আমার
স্বপ্নের রাজকুমারীর
মত”
ছেলেটির এমন উত্তর
শুনে মেয়েটির একদম
চুপ হয়ে যায়।
রাজকুমারীরা দেখতে
তো অনেক সুন্দর হয়,
কিন্তু সে তো…,,,,,,!
.
সেদিনের পরই মেয়েটি
আরো শক্ত ভাবে
সিদ্ধান্ত নেয়,
সে কখনোই দেখা দিবে
না,।
ছেলেটিকে হারানোর
ভয় ঘিরে ধরে তাকে
প্রবল ভাবে।
ছেলেটি দেখতে সুন্দর।
তার প্রোফাইলে অনেক
গুলো ছবি আপলোড
করা।
মেয়েটি লুকিয়ে
লুকিয়ে তার
প্রোফাইলে গিয়ে ছবি
গুলো দেখে।
দেখতে দেখতে হঠাৎ
করে চোখের পাতা
ভিজে আসে মেয়েটির।
.
————-
.
অবশেষে মেয়েটি যা
ভেবেছিলো তাই হলো।
মেয়েটি ছেলেটির
অতি জোরাজুরি তে
তার একটা ছবি
ছেলেটির ইনবক্সে
সেন্ড করলো।
সে দেখতে কালো,
রোগাপাতলা,।
মেয়েটার ছবি দেখার
পর
ছেলেটি আর একটা
ম্যাসেজও পাঠায়নি
মেয়েটিকে।
কিছুক্ষন পরই
ছেলেটির আইডি নীল
থেকে কালো হয়ে
গেলো,।
.
…মেয়েটি রাতে আর
ঘুমাতে পারে না।
চোখের পাতা দু’টো এক
হয়না।
আশেপাশের বাতাস
গুলো ভারী হয়ে আসে,
নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট
হয় তার।
সে নিস্তব্ধ হয়ে
ছেলেটিকে ভাবতে
ভাবতে রাত পার করে
আর মাঝে
মাঝে মুচকি করে হেসে
ফেলে,।
বিচিত্র সে হাসির
অর্থ কেউ
খুঁজতে আসে না।
.
————-
.
ঠিক তিন দিন পর।
বিকেল পাঁচটার দিকে,
মেয়েটির আইডিতে
একটা ম্যাসেজ আসে।
ম্যাসেজ টা সেই
ছেলেটির,
“তুমি কোথায়? আমি
ঢাকা থেকে রাজশাহী
তে চলে এসেছি।
আমি এখন রাজশাহী
রেল স্টেশনে এসে বসে
আছি”
.
মেয়েটি বেশী কিছু
ভাবতে পারে না।
পাগলপ্রায় হয়ে দ্রুত
বাসা থেকে বের হয়ে
স্টেশনে চলে যায় সে।
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
ছেলেটি ছোট্ট একটা
বেঞ্চে বসে তার জন্য
অপেক্ষা করছে।
মেয়েটি গিয়ে
ছেলেটির সামনে
দাঁড়ায়।
ছেলেটি ধরে আসা
গলায় বলে,
“তুমি না সারপ্রাইজ
পেতে পছন্দ করো,
এটা তোমার
সারপ্রাইজ…!
এখনো কি মনে হয়
আমি তোমাকে দেখে
হারিয়ে যাবো??
তোমাকে ইগনোর
করবো??
আর কোনোদিন যেন
এই ধরনের
কথা না শুনি, ওকে??
.
মেয়েটি জলছল চোখে
নির্বাক ছেলেটির
পাশে বসে আছে।
কিছু অনুভূতি ভাষায়
বর্ননা করতে হয় না।
অপর মানুষটি
এমনিতেই বুঝে যায়
সব।
ছেলেটি মেয়েটির
দিকে মুগ্ধ দৃষ্টিতে
তাকিয়ে আছে,
পাশে বসা মেয়েটিকে
তার কাছে
একদম স্বপ্নের
রাজকুমারীর মত
লাগছে।
পৃথিবীর প্রত্যেকটা
ছেলের কাছেই যে তার
ভালবাসার মানুষটি
এক একটা
রাজকুমারী,।
এটা হয়তো কেউ কেউ
জানেনা,।…………..

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *