পিচ্ছি মেয়ের ভালোবাসা ! পার্ট – ২য় & শেষ

😍পিচ্ছি মেয়ের ভালোবাসা😍
#পর্ব:২য় ও শেষ

.
.
ওরে বাপরে বাপ…..এ মাইয়া তো আমারে
মাইরালাইবো……কি কইরতাম কিছু মাথায়
আসে
না…….
.
.
.
রনি:-কিরে তোর খবর কি?
আমি:-রাখতো খবর, সাবান দেয়….
রনি:-কয়টা দিমু…
আমি:- তোর দোকানে যত সাবান আছে সবগুলো এক
পিস করে দিয়ে দেয়..😁……
রনি:-এত সাবান কি কবরি.😂….
আমি:-কিছু খামু,কিছু তা দিমু যাতে করে সাবানের
বাচ্ছা বের হয়…..😁
রনি:- দিচ্ছি, তুই কোন দিন ঠিক হবি না….
আমি:-ওই সুরেজ এর বন্ধু রনি…আমি কি ঠিক
নাই..😎….
রনি:-নেয় তোর সাবান, এবার যা…..
আমি:-আইসক্রিম দেয়?😕
রনি:-কয়টা দিমু…..😂
আমি:-দেয় না কয়েকটা….আইসক্রিমের টাকা
লিখে রাখ,😁
রনি:-ওকে যা…..
.
.
ভাবছেন রনি টা কে…ও আমার বন্ধু, ও ওর
মামার দোকানে বসে।

গেট খুলে ভিতরে ডুকতে দেখি পিচ্ছি পাগলি
টা বসে আছে দরজার সামনে…কেমন যেন
লাগছে ওকে…আমাকে দেখা মাএ দৌড়ে
আসছে,কাছে এসে…..
.
ইভা:-তুই ঠিক আছিস তো?(আমার গাল ধরে দুহাত
দিয়ে)
আমি:-কে রে কি হয়েছে….আর তোরে এমন
দেখাচ্ছে কেনো?
ইভা:-আমার কিছু হয়নি,তুই ঠিক আছিস।
আমি:-হুম,
–দাড়া, কাঁদছিস কেনো?
ইভা:-এমনি…..
আমি:-ওহহহহহ…
.
.
নামাযের সময় হয়ে গেছে তাই নামায পড়তে
চলে গেলাম….এসে দেখি পিচ্ছি টা বসে
আছে মন খারাপ করে….
আমি:–কিরে কি হয়েছে তোর,আম্মু কোথায়।
ইভা:-আন্টি নামায পড়ে..
আমি:-তুই পড়িস নাই….
ইভা:-হুম…
আমি:-তোর মন খারাপ কেনো?
ইভা:-আম্মু ফোন দিছে বাড়িতে যাবো।
আমি:-তো কি হয়েছে যাবি,আবার দুদিন পর চলে
আসবি….
ইভা:-তুইও যাবি আমার সাথে…..
আমি:-আম্মু যাবে….
ইভা:-না…
আমি:-তাহলে আমি যাবো না…..
ইভা:-তুই যাবি তোর ঘাঁড় যাবে,ফাজিল
পোলা…আমি একা যাবো নাকি
আমি:-ওকে, তোরে দিয়ে চলে আসবো…
ইভা:-সেটা তখন দেখা যাবে…..😎
.
.
বিকালে খাওয়া দাওয়া শেষ করে রওনা
দিলাম পিচ্ছিদের বাড়ীর দিকে।ওহহহহ ওদের
বাড়ী শহরে, ও এখানে থাকে আমাদের
গ্রামের বাড়িতে আম্মুর সাথে….বাসের
টিকিট কেটে ৭ টায় বাসে উঠলাম….ওর সাথে
কথা বলছি অনেক্ষন যাবত…কিন্তু ফাজিল
মাইয়া আমার দিকে তাকিয়ে আছে….সেই
কখন থেকে….
আমি:-কিরে পিচ্ছি তাকিয়ে আছিস কেনো?
ইভা:-তাতে তোর কি?
আমি:-আমার দিকে তাকিয়ে আছিস কেনো বল.।
ইভা:-ভালোলাগে তাই….
আমি:-ওহহহহ,কিছু খাবি…
ইভা:-হুম,
আমি:-কি খাবি,বিরিয়ানি নাকি চকলেট।
ইভা:-দুইটা খাবো…
আমি:-নে ধর বিরিয়ানি খা…..
ইভা:-খাইয়ে দেয়….
আমি:-পারমু না….
ইভা:-ওকে দিতে হবে না…আমি খাবোও না…
আমি:-নে হা কর…..
.
.
পিচ্ছি টা অনেক দুষ্ট হয়ে গেছে….আমার মনে
হয় ও আমায় ভালোবাসে….কিন্তু প্রকাশ
করতে পারছে না…….
.
ইভা:-এই তুই খাবি না?
আমি:–হুম,খাচ্ছি তো।
ইভা:-হা করে আছিস কেনো?
আমি:-কই খাচ্ছি তো….
ইভা:–হুম।
এই মাইয়া তো হেব্বি ফাজিল……. আমি
খাচ্ছি তবুও ধমক দেয়…আমি যেনো কিছু বুঝি
না..একটু ভাব নিতে চাইছে…এত ভাব নিয়া
তোর কোন লাভ হবে না…যত ইচ্ছা নিতে
পারিস….প্রপোজ কিন্তু আমি করবো না….
খাওয়া শেষ করে গান শুনতেছি,এমন সময়
দিলো এক ধাক্কা…
আমি:–কি হইছে তোর,ধাক্কা মারিস কেনো?
ইভা:-তো কি করবো?
আমি:-কি করবি মানে, ঘুমা?
ইভা:-ঘুমাবো না,কি করবি তুই?
আমি:-তোরে কিছু করমু না,কিন্তু তোদের বাড়িতে
যাবো না…..
ইভা:-এই কুত্তা তুই না আমার সম্পত্তি, এমন করিস
না কষ্ট হয় তো আমার তোরে ছাড়া..
.
.
আমি:-এই মাইয়া আমি আবার তোর সম্পত্তি হলাম
কবে…..আমি আমার বউয়ের…
ইভা:-এখন আমার….
–মাইরালামু তোরে….
আমি:-চুপ করে ঘুমা তো…বেশি বকবক করিস…
ইভা:-হুম…
আমি বসে বসে ফেসবুক গুতাইতেছি আর পিচ্ছি
ঘুমাচ্ছে। আমি আবার গাড়িতে ঘুমাতে পারি
না……কেমন যেনো লাগে….এটা আবার কি
পড়ছে কাঁধে… উফফফ অসহ্য সবকিছু আমার
উপর পড়ে কেনো কে জানে….এটা আবার
কে,,,, ও এটা তো পিচ্ছি টা আমার…..কি সুন্দর
করে ঘুমাচ্ছে, মেয়েদের যে ঘুমালে আরো
সুন্দর দেখায় আজ পিচ্ছি পাগলিকে না
দেখলে বুঝতাম না…..কি সুন্দর তার ঠোঁট
দুটি,চিকন পাতলা ঠোঁট দুটির উপর হালকা
গোলাপি লিপিস্টিক দেওয়া,চোঁখে ঘাড় করে
কাজল দেওয়া….হালকা মেকাপ থাকায় ওর
সৌন্দর্য যেন আরো বেড়ে গেছে….না আর না
আর কিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকলে নিজেকে
কন্ট্রোল করতে পারবো না….ওরে একটু
জ্বালাই এটা ভালো হবে…..
.
.
আমি-এই পিচ্ছি উঠ না।।
–……………
আমি:-এই পাগলী….
—…………
আমি:-এই মাইয়া উঠবি নাকি ধাক্কা দিমু?
ইভা:-কি হয়েছে তোর?(এখনো কাঁধে মাথা দিয়ে)
আমি:-তুই আমার কাঁধে মাথা দিয়ে ঘুমাচ্ছিস
কেনো?আমি কি তোর বর লাগি।
ইভা:-হুম,(এবার বুকে চলে আসছে)
আমি:-এই ছাড়বি নাকি ধাক্কা দিমু,,,,
ইভা:–উফফফফফ,একটু ঘুমাই না…..এমন করিস
কেনো….
এমন ভালো তাকালো আর কিছু বলতে পারলাম
না,পিচ্ছি টাকে ধমক দিতে পারবো না
আমি….😘..।
.
.
পিচ্ছি দের বাড়ি থেকে আজ ৩ দিন পর চলে
যাচ্ছি…আমি যেন মেয়ের জামাই এমন যত্ন
করলো কি আর কইতাম.সবার থেকে বিদায়
নিয়ে আমি আর পিচ্ছি টা চলে এলাম….
আমাদের গ্রামে ১০ টার পর গাড়ি পাওয়া যায়
না,তাই হেটে আসছি কিছুদূর আসার পর পিচ্ছি
বলছে………
ইভা:-আমাকে কোলে নিয়ে চল?
আমি:-পারবো না।
ইভা:-এই নেয় না কোলে একটু।😘
আমি:-না।
ইভা:-তাহলে আমি তোর সাথে যাবো না।
আমি:-না গেলে নাই,
ইভা:-আমাকে রেখে যেতে পারবি.😭…..
আমি:-না,মাইরলাইবো আম্মু
ইভা:-তাহলে কোলে নেয়….
আমি:-চল….
.
.
পরের দিন সন্ধ্যায়
রাতে অনেক ভেবে বের করলাম,ওরে আজ
আমি যে ভাবে হোক প্রপোজ করাবো।তাই
ওরে এখন আসতে বলছি…মনে আসছে নুপুরের
শব্দ হচ্ছে…আমি যাই লুকিয়ে পড়ি…ট্যাংক
এর উপর বসে আছি ও আসার সাথে সাথে
লুকিয়ে গেছি….ও অনেক খুজেও যখন
পাচ্ছে না,ঠিক তখনই ওর সামনে লাফ
দিলাম….ও অবাক হয়ে তাকিয়ে থেকে
আমাকে জড়িয়ে ধরলো😍…..
আমি:-কি হচ্ছে পিচ্ছি।
ইভা:-শুধু পিচ্ছি না,বল পিচ্ছি বউ।
আমি:-মানে?
ইভা:-মানে, তুমি আজ থেকে আমার বর।
আমি:-প্রপোজ কর তাহলে,
ইভা:-প্রপোজ না করলেও তুমি আমার না করলেও
আমার।
আমি:-আমি রাজি না।
ইভা:-তোমাকে রাজি হতে হবে না।ওধু আজ থেকে
পিচ্ছি বউ বলে ডাকবে।
পরে ওর কাজ থেকে জানতে পারছি,আম্মু আর
আন্টি যখন কথা বলছিলো ও শুনছে….তাই এসে
সরাসরি বলে দিলো ভালোবাসে….আর এখন
পিচ্ছি টা আমার কাঁধে মাথা দিয়ে বসে
আছে……..😘😍
.
**সমাপ্ত **

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *