বেয়াইনের প্রেম Part-2

বেয়াইনের প্রেম

পর্ব_০2

লেখাঃ আবির

 

ভাবীর কাছে গিয়ে বললাম

ভাবী তোমার বোনকে বলে দিও
আমার সাথে যেন লাগতে না আসে 😏

সাথে সাথে তিশা ও হাজির,,, মনে হচ্ছে আমাকে কাচা চিবিয়ে খেয়ে ফেলবে চোখে মুখে প্রচন্ড রাগ,

আপপপপপপপপপপু,, তোমার দেবরকে বলে দিও আমার চুলে যেন হাত না দেয় 😠😠😠

ইশশশশশ,,,, যে না পাটের আশের মত কয়টা চুল তার জন্য এত ভাব,,, কোনদিন পাটের বেপারী পাঠিয়ে কিনে নিবো নাহলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে নুডুলস রেধে খাবো 😁😁

কি বললে শয়তান ছেলে?? আপু তুমি কিছু বলবে না?? তোমার এই পিচ্চি বোনটাকে এভাবে বললো আর তুমি চুপ করে হাসছো?? বাহহ চমৎকার,, এজন্যেই বলে,,বিয়ের পর মেয়েরা তাদের বোনকে ভুলে যায়, ঠিকআছে থাক কিছু বলতে হবে না,, 😥😥😕😔😞

দুজনের ঝগড়াঝাটি দুজনে সামলাও তোমরা আমি কিছু বলতে পারবো না,, আমি গেলাম

যাও যাও তোমার এই খাটাস মার্কা দেবরকে আমি একাই টাইট দিতে পারি,,, আমার বান্ধবীদের আসতে বলতেছি তারপর বুঝাবো মজা

যে পারার সে একাই পারে,,, লোকজন খবর দিতে হয়না,,,

তোমার মত ডেঙ্গু কে শায়েস্তা করার জন্য একা জমবে না তাই কয়েকজনই লাগবে

হুহহহহ, আবিরকে শায়েস্তা করা এত সহজ না বেয়াইন, চ্যালেন্জ রইলো,, তোমার কি বেহাল অবস্থা করব ভাবতেও পারবা না,,,

চ্যালেন্জ নিলাম বেয়াই,, আমি সেফ থেকে তোমাকে ঘোল খাওয়াবো,,

হুহহহহ

হুহহহহহহহহহ

প্রথম দেখাতেই একচোট ঝগড়া হয়ে গেলো তিশার সাথে,,, কিন্তু সত্যি বলতে প্রথম দেখাতেই খুব ভালো লেগেছে তিশাকে,,,

ওর স্টাইলিশ চুল,,টানা চোখ,, রেগে কথা বলার পর লাল হয়ে যাওয়া টসটসে গাল,,আর সেই রাঙা ঠোট জোড়ার কথা আর নাই বা বললাম,,,,

কখনো এতটা সময় নিয়ে কোন মেয়ের দিকে তাকিয়ে দেখিনি,, তিশার মাঝে একটা অন্য রকম কিছু আছে,, খুব মায়াবী,,, Something special. ❤

আমি ভাবীকে বললাম

ভাবী বিকেলে আমাকে ঘুরতে নিয়ে যাবা, তোমাদের এলাকাটা ঘুরিয়ে দেখাবা,,

তোমার ভাইকি আমাকে যেতে দেবে?? দেখোনা সারাদিন আমাকে চোখের আড়ালে যেতে দেয় না আবার ঘুরতে যেতে দিবে?? 😏

আহা কত ভালোবাসা,,, থাক তাহলে আর তোমার গিয়ে কাজ নেই,, আর কি কেউ নেই আমাকে একটু ঘুরিয়ে দেখাবে?? 🙄🙄

ওওওওওও বেয়াই এত চিন্তা কিসের?? তোমার যে কোন সমস্যায় তোমার এই বেয়াইন আছে না?? তোমাকে আমি ঘুরতে নিয়ে যাবো টেনশন করো না 😌

তাহলে তো আর চিন্তা নেই,,, দুপুরে খেয়ে তারপর বের হবো,, ( মনে মনে তো এটাই চাচ্ছিলাম )

ওকে বেয়াই ☺☺ ( হেহে চলো একবার তারপর বুঝবা)

তিশার দুষ্ট হাসিটা ভালো করেই বুঝতে পারলাম,, হয়তো আমাকে টাইট দিতে কোন ফন্দি এটেছে,,, কি জানি কি করে 😐😐

আমি বারবার এদিক ওদিক শুধু তিশাকে খুজছি, ওকে দেখলেই কেন জানি ভালো লাগার অনুভূতি পাচ্ছি। বড় বাড়ি,, তাই কিছু টা দুরত্ব রেখে তিশার পিছনে হাটছি,

ওওও বেয়াইনননননন

উফফ,, সারাক্ষণ মেয়েদের পিছে কি হুমম??

তুমি ছাড়া কিছু ভালো লাগেনা তাই তোমার কাছে আসি গো,,, কখন ঘুরতে যাবা??

সেটা তো বিকেলে,, এখন কি

কখন যে বিকেল হবে

এত তাড়া কিসের??

তুমি বুঝবা না গো

হুহহ,, বুঝলে বুঝকথা না বুঝলে তেজপাতা

বাপরে তুমি তো দেখি ভালোই কথা জানো?? এমন করেই কি বফ কে পটিয়েছিলে নাকি?? [বফ আছে কিনা সেটা ট্রিকস করে জানার চেষ্টা]

ওসব নেই আমার আমি ভালো মেয়ে,, তোমার গফ কয়টা গো বেয়াই

ছি! আস্তাগফিরুল্লাহ!! এসব করতে নেই,,, পাপ হয়,, আমি তো নিরীহ মাসুম ভদ্র ছেলে একটা

উহহহহ,,,, কতটা ভদ্রলোক তা তো দেখলেই বুঝা যায় যতসব খাটাস মার্কা ছেলে

ওই ওই একদম চুল ছিড়ে ফেলব কিন্তু,, বেশি সাহস হয়ে গেছে তাইনা

সাহস কতটা তা তো পরেই টের পাবা,,, এখন যাও তো আমি গোসল করব,, একটা খাটাসের সাথে কথা বলে শরীর গন্ধ হয়ে গেছে ছি ছি ওয়াক,,,

একটা সুন্দরী মেয়ের কাছে বোল্ড হয়ে গেলাম,,, অবশ্য ভালোই লাগলো

সোজা চলে গেলাম আম্মুর কাছে,, গিয়ে আচল দিয়ে মুখ ঢেকে রাখছি,,,

কি রে আজ হটাত আম্মুর কোলে?? বেপার কি??

কই কিছু না তো

হুমম বুঝি তো টাকা লাগবে??

আরে বাবা নাহহহহ,,,,

তো কি শুনি

না এএএমমমনি,,, ইয়ে মানে এখানে থাকবা কয়দিন

কাল সকালে চলে যাব

কেন?? নতুন আত্মীয় একদিন থাকলে মানুষ কি বলবে?? ২/৪ দিন থেকে যাও না

উলে বাবা,, আচ্ছা দেখা যাবে পরে,, এখন চল আন্টি খাবার দিবে

ওকে চলো

তারপর সবাই মিলে একসাথে খাবার খেলাম হাসি ঠাট্টা করে খুব মজাই হলো।।

ভাইয়া তো বউ নিয়েই বিজি,,, শালা বউ পাগলা,, আমিও একদিন বিয়ে করে তারপর দেখাবো হুহহহ,,

অপেক্ষায় আছি কখন বিকেল হবে।

কিছু সময় পর দেখি ৩ জন মেয়ে আসলো,, তিশার কথায় বুঝলাম ওর বান্ধবী,, যাদেরকে দাওয়াত দিয়ে এনেছে আমাকে শায়েস্তা করার জন্য।

আমাকে দেখিয়ে কি জানি বলাবলি করতে লাগলো,, তবে তার বান্ধবী গুলোও খুব কিউট,,, কাকে রেখে কাকে দেখব বুঝতে পারছি না।

বিকেল ৪ টার সময় আমার কিউট বেয়াইন সাহেবা এসে ডাকতে শুরু করলো,,

বেয়াই গো ওও বেয়াই,, কই গো আমার রসিক বেয়াই
{{বলি দেয়ার আগে কত মধুময় কথা }}

কি গো বেয়াইন কি হলো

চলো ঘুরতে যাবা না

হুমমম চলো একটু রেডি হয়ে আসি

জলদি করো

আমি জলদি রেডি হয়ে সানগ্লাস আর গাড়ীর চাবি নিয়ে বের হলাম।

গাড়ীর পিছনে ওর ৩ বান্ধবী বসলো,, আর সামনে তিশা,, আমি তো ড্রাইভার হয়েই আছি।

আমরা সবাই গ্রামের পথ দিয়ে বেশ দুরেই চলে এলাম,,
নদীর ধারে বিরাট একটা বটগাছের নিচে এসে গাড়ী থামালাম,, পাশে বড় একটা পুকুর,,,

আশেপাশে কিছু ফুসকা চটপটির দোকান,, সবাই মিলে বসলাম ওখানে

 

,,,,……….. #চলবে

গল্পটা কেমন লাগলো জানাবেন।

বেয়াইনের প্রেম Part-3 

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *