সিনিয়র বউয়ের জুনিয়র বর -part-5

💏 সিনিয়র বউয়ের জুনিয়র বর 💏
পার্ট  -5

Writer By Misti prem mithun KhAN 💏

আমার পিছনে মেয়ে বসে থাকতে দেখে হয়তো কষ্ট পাইছে
পাইলে কি এ তো ক্যাবোল শুরু কষ্ট সোজা সামনে দিয়ে চলে আসলাম
বাসাতে এসে ফারিহাকে বাইক থেকে নামতে বলে বাইটা একসাইডে রাইখা ভিতরে গিয়ে ফ্রেশ হয়ে নিলাম
ফ্রেশ হয়ে আমার রুমে চলে গেলাম
বসে ভাবতে লাগলাম
অবনি তো আমাকে ভালো বাসে না আর হাজবেন্ড হিসেবেও মানে না তাহলে ফারিহাকে আমার পিছনে বসে থাকতে দেখে রাগি ভাবে তাকালো কেন
এমনিতেই হয়তো
এসব ভাবতে ভাবতেই ফারিহা চলে আসলো
ফারিহা,,,, ভাইয়া আম্মু তোকে ডাকছে খাওয়ার জন্য
আমি হুম,, তুই যা আমি আসছি
ফারিহা চলে গেলো আমি একটু পরে নিচে গিয়ে খাওয়াদাওয়া করলাম মামানির সাথে কিছুক্ষন
গল্প করে
ফারিহার রুমে গেলাম
ফারিহা দেখলাম পড়ছে তাই চলে আসলাম
যাই একটু বাইরে থেকে ঘুরে আসি
মামাদের এখানে তেমন কোন বন্ধু নেই তাই একাই একটু ঘুরাঘুরি করলাম রাতে বাসাতে আসতে ছিলাম
কিছুদুর আসতেই দেখলাম একটা মেয়ে চিতকার করছে আসে পাশে তাকিয়ে দেখলাম কেউ নেই
তাই যেদিক থেকে চিতকার আসছে ওই দিকে আগায় গেলাম
যেয়ে দেখলাম একটা ভাঙ্গা ঘর থেকে চিতকার টা আসছে
ভেতরে যেতেই দেখলাম ২টা ছেলে একটা মেয়েকে ধরে রাখছে আর বলতে ছিলো আজ তোকে কেউ বাচাতে আসবে না এখানে
আর মেয়েটা কাদতে ছিলো
আমি সোজা গিয়ে ঘরের
ভিতর গেলাম প্রথম ছেলেটাকে জোরে গিয়ে নাকের উপর একটা ঘুসি দিলাম নাক ফেটে রক্ত বের হতে লাগলো আর আরেকটাকে ধরে মারতে লাগলাম দুইজন ওই পালালো
মেয়েটা দেখলাম আমাকে দেখেও
অনেকটা কাপতে লাগলো
আমি এই যে ভয় পাবার কিছু নেই সবাই এক না
মেয়েটা আমাকে বাচানোর জন্য ধন্যবাদ
আমি হুম,কিন্তুু আপনি কোথায় থাকেন আর কোথায় যাবেন মেয়েটা,, আমি পাশেই থাকে একটু গেলেই আমার বাসা আমি চলেন আপনাকে আগায় দিয়ে আসি মেয়েটা হুম,, দুই জন হাটতে লাগলাম কিছুক্ষন হাটার পর
মেয়েটা,,, একটা বড়ো বাড়ির সামনে এসে বল্লো এইটাই আমার বাসা ভিতরে আসেন
আমি না অনেক রাত হয়ছে
আমি এখন আসি মেয়েটা না
বাসার ভিতরে আসেন মেয়েটা কলিং বেল চাপতেই একটা লোক বেরিয়ে আসলো আরে এটা তো সিয়াম অবনি যাকে ভালবাসে
মেয়েটা সিয়াম কে ধরে কান্না করতে লাগলো ভাইয়া এই ছেলেটা না থাকলে আজ আমার সব শেষ হয়ে যেতো
সিয়াম ওর বোনকে ছেড়ে আমার কাছে আসলো সিয়াম, ভাই তোমাকে কি বলে ধন্যবাদ দিবো জানিনা তুমি অনেক বড়ো উপকার করছো আমার
আমি,,, ভাইয়া কোন বিষয় না মানুষ তো মানুষের বিপদে এগিয়ে আসবেই
সিয়াম,,, আরে তুমি মিঠুন না
আমি হুম
সিয়াম,, ভাই ক্ষমা করে দাও আমি বুঝতে পারি নাই ওই অবনিটার জন্য তোমাকে কার দিয়ে ধাক্কা দিয়ে ছিলাম সেদিন
আমি,, ভাইয়া বিষয় না মানুষ মাতরই ভুল
সিয়াম,,, হুম কিন্তু অবনি তোমার কি হয় বলো
আমি,,, তেমন কেউ না ভাইয়া
সিয়াম,,, সত্যি কথা বলো অবনি তোমাকে এত্তো অপমান করলেও কেন ওর কাছে যাইতা,,
আমি ভাইয়া এমনিতেই বাদ দিন
আমি,,, আচ্ছা ভাইয়া অনেক রাত হয়ে গেলো এবার বাসায় যাওয়া দরকার সিয়াম,,, আমাদের বাসায় ই থেকে যাও আমি,,,না ভাইয়া বাসার সব্বাই টেনশন করবে
সিয়াম,, আচ্ছা
সোজা বাসায় চলে এলাম
এসে কলিংবেল চাপতেই দরজা খুলে দিলো মামি
মামি,, এতো রাতে কোই ছিলা
আমি,, মামানি একটা কাজে লেট হইয়া গেছে মামানি আচ্চা খাবার খেয়ে নাও আমি,, হুম
ডিনার করে আমি,, মামানি ফারিহা কোই মামানি,,
ওতো মনে হয় ঘুমাই গেছে
আমি,, ও আচ্চা
আমার রুমে গিয়ে শুয়ে পড়লাম
সকালে উঠে ফ্রেশ হয়ে রেডি হতে লাগলাম ফারিহা একটু পর ডেকে গেলো নাস্তা করতে নাস্তা করে দুইজন বের হলাম বাইক নিয়ে ফারিহাকে ওর কলেজে রেখে চলে আসতে লাগলাম একটু পর দেখলাম অরিন আপু ফোন দিছে আমি,,, আপু কেমন আছো অরিনআপু,,, হুম ভালো কিন্তু পিচ্চি ভাই তুই একটু আমাদের ভার্সিটিতে আসতে পারবি আমি,, কেনো
অরিন আপু,,, তোরে দেখতে ইচ্চে করছে তাই আমি,,, আচ্ছা আপু তুমি একটু ওয়েট করো আয়তাছি
বাইকটা নিয়ে সোজা ভার্সিটির ভিতর ডুকে গেলাম
একটু যেতেই দেখলাম
অবনি ও ওর সব বান্ধবি গুলো বসে আছে
আর ওদের মধ্যে সিয়াম ও আছে
অবনির মুখের দিকে তাকাই দেখলাম মুখটা মলিন
হয়তোবা কোন কারনে মন খারাপ
একটু আগাতেই
সিয়াম,, ওদের ভিতর থেকে
ওই মিঠুন এদিকে আসো
আমি,, হুম
সোজা চলে গেলাম সিয়াম আর অবনিরা যেখানে বসে আছে
সিয়াম,, কেমন আছো ভাই
আমি,, হুম ভালো
অবনি দেখলাম আমার দিকে তাকাই আছে
থাকলে আমার কি
সিয়াম,, সবাই কে উদ্দৃশ্য করে
এইটা হলো মিঠুন ও কালকে
আমার বোনকে কিছু গুন্ডার হাত থেকে বাচাইছে
ও না থাকলে হয়তো অনেক খারাপ কিছু হয়ে যেতো
আজ থেকে ও আমার ছোট ভাই
আমি,, ওকে ভাইয়া থাকেন আমাকে আবার অরিন আপু ডাকছে
সিয়াম হুম যাও
চলে আসতে যাবো পিছন থেকে
কে জেনো
ডাকলো ওই পিচ্চইইই শুনো
পিছন ফিরে দেখি অবনির বান্ধবি সিনথিয়া
আমি হুম বলেন,,, সিনথিয়া
আমার কাছে এসে পিচ্চি আমি তোমাকে ভালোবাসি
আমি,,, মানে সিনথিয়া যেদিন তোমাকে প্রথম দেখেছি সেদিন থেকেই ভালো বাসি
আমি,,, দেখেন আপু আমি কাওকে ভালোবাসতে পারবো না
আর আপনি আমার ২ বছর এর বড়ো এটা কখনোই সম্ভব নয়
সিনথিয়া আমাকে আর কিছু না বলতে দিয়েই আমাকে জড়াই ধরে
আমার তোমাকেই চাই তোমার মতো পিচ্চি কিউট বর পেলে আর কি লাগে
তাই বলে কপালে কিছ করে দিছে
আমি,, সিনথিয়া কে ছাড়াই দিলাম
ততখানি অবনি,চলে আসছে
দেখেই মনে হচ্চে খুব রেগে আছে
সোজা এসে সিনথিয়াকে দুইটা চড় দিয়া দিলো
অবনি,,, তোর সাহস হয় কি করে ওকে জড়ায় ধরার কিছ করার
সিনথিয়া,,, ওই আমি ওকে জড়ায় ধরি আর কিছ কর যা ইচ্চা করি তাতে তোর কি হুম
ও কি তোর সামী লাগে,,
অবনি,,, হ্যা ও আমার সামী আর কিছু বলবি
আর কোনোদিন যদি ওর আসে পাশে দেখছি তোর খবর আছে
সিনথিয়া বল্লেই হলো সামি
আমি ওকেই ভালো বাসি বাসবো
অবনি আমার কলার চেপে ধরলো
অবনি,,, ওই ঘরে বউ রেখে খুউব লুচ্চামি করতে ইচ্চে করে না তোর
আমি,,, কলার টা ছাড়েন
অবনি,,ছাড়বোনা কি করবি কাদতে কাদতে
আমি,,, আমার কোন বউ নেই
আর যদিও কেউ ছিলো সেটা নামের বউ ছিলো
যে কখনো আমাকে মেনে নেয় নি
আর আমাকে দেখলে তার খারাপ লাগতো তাই চলে আসছি
আর যে মেয়ে কার চাপা দিয়ে নিজের সামিকে হত্যা করতে চাই
সে কখনো কারও বউ হতে পারে না
আর হ্যা আমি এখানে কোন লুচ্চামি করি নাই যা করছে আপনার বান্ধবি করছে
সো আমাকে লুচ্চা বলবেন না,
অবনি আমার দিকে তাকাই আছে আমি,, ও হ্যালো আমার কলারটা ছাড়েন
আর হ্যা আপনি যখন আমার সামনে সিয়ামের সাথে ঘুরছেন আমি তো কিছুই বলি নাই
সো আমার বিষয়ে নাক গলাবেন না ওকে
অবনি,,, তুমি আমাকে ভুল বুঝো না প্লিজ এটা একটা বাজি ছিলো শুধু সিয়ামকে আমি ভালো বাসিনা
আমি,,, নাটক তো দেখছি ভালই পারেন
আমাকে গাড়ি দিয়ে তো ঠিকই ধাক্কা দিয়েছিলেন

মেরে ফেলার জন্য হ্যা আফসোস
আপনার কপালটা খারাপ আমি
বেছে আছি কি চান আপনি আবার মেরে ফেলতে আমাকে
নতুন নাটক করে কাছে টেনে
আমি আপনাদের মাঝে বড়ো বাধা না আমার জন্য দুইজন এক হতে পারছেন না তাইতো
টেনশন কইরেন না কিছুদিন পরেই ডিভোর্স পেপারটা পেয়ে যাবেন
ভালো থাকবেন
আর কোনো কথা না বলে বাইকটা নিয়ে অরিন আপুদের কাছে চলে গেলাম,,,,,

,,,
অরিন আপু,,, কিরে পিচ্চি কেমন আছিস
আমি,, হুম আপু ভালো তুমি
অরিন আপু হুম ভালোই কিন্তু
আমি,,, কি আপু
অরিন আপু,,, সিনথিয়া মানে অবনির বান্ধিটা সব সময় জালাই মারতাছে ও নাকি তোকে লাভ করে আমি,, আপু আমি আর কাউকে ভালোবাসতে পারবো জানো তো আপু আমি আমার সিনিয়র বউটারে অনেক ভালোবাসতাম
আর ও কিনা অন্য কাউকে ভালো বাসে
অরিন আপু হুম বুঝলাম,,, আচ্চা আমি ওকে বলবো কিন্তুু কাজ হবে কিনা জানিনা
আমি,, ওকে আপু আজ তাহলে আসি
অরিন আপু,,, হুম বাই
বাইক নিয়া কিছুটা আসতেই সিনথিয়া সামনে
ওই পিচ্চি থামো
আমি বাইকটা থামালাম
আমি,,, হুম আপু কিছু বলবেন
সিনথিয়া আমার কাছে আরেকটু এগিয়ে সোজা আমার কলার ধরে কি বল্লি আরেকবার বল
আমি,,, আপু কি বলবেন বলেন
এবার কান ধরে
আর আপু বলবিনা মনে থাকবে
আমি,,, তাহলে কি বলবো
সিনথিয়া,,বউ বলবি
আর আমি বিবাহিত
আমি,,,আপু আপনার মাথা ঠিক আছে আপনার আমি দুইবছরের ছোট
সিনথিয়া,,, তো কি হইছে আমি তোর সিনিয়র বউ আর তুই আমার জুনিয়র জামাই
আমি,,, আপু প্লিজ পাগলামি কইরেন না
সিনথিয়া,,, আমি মোটেও পাগলামি করছি না আমি তোকে সত্যি ভালোবাসি পিচ্চি
ওই পিচ্চি তুই কি আমার জুনিয়র জামাই হবি
কোথা থেকে জেনো
আবনি এসে,, ঠাস ঠাস
কি ভাবছেন আমারে মারছে না
সিনথিয়া আপুরে মাইর দিছে
অবনি,,, ওই তোর সাহস কি করে হয় আমার হাজবেন্ড কে টাচ করার ওর দিকে যদি তুই তাকাস ও না তুই
তোর চোখ তুলে নিবো
সিনথিয়া,,, ওই এখন তো খুব বউ গিরি দেখাইতে আইছোস
এক সময় তো এই পিচ্চিটারে হাজবেন্ড হিসেবে পরিচয় দিতেও ঘৃনা করতি
সারাদিন তোর পিছু ঘুরতো আর তুই অপমান করতি
আর শেষে তো তোর লাভার সিমায় কে দিয়ে এই পিচ্চিটাকে চিরতরে বিদায় দিয়ে দিতে চাইছিলি
কিন্তুু পারিস নাই
আর আমি এখন ওরে ভালোবাসতে চাচ্চি তাতে তোর সমস্যা কোই
তুই তোর সিয়াম কে বিয়ে করে নে,,,
আবনি,,, কোন কথা বলছে না শুধু কান্না করছে
আবনি,,, জানি আমি অনেক বড় ভুল করছি আর বিলিভ কর সিয়ামের সাথে শুধু ওইটা বাজি ছিলো
আবনি,,, দেখ তোকে বোন হিসেবে বলছি আমার হাজবেন্ড কে ফিরিয়ে দে
তুই তো জানিস মেয়েরা আর কিছু পারুক না পারুক হাজবেন্ডের অধিকারটা কাউকে দিতে চাইনা
সিনথিয়া,,, দাত থাকতে দাতের মর্ম বুঝতে হয়
আমি,,, বাই আমার কলেজ এর দেরি হয়া যাইতাছে
সিনথিয়া,,, ওই পিচ্চি সাবধানে যেও
আমি,,, সোজা কলেজ গিয়ে ক্লাস করে ছুটির পর
ফারিহাকে নিয়ে বাসায় চলে আসলাম
বাইকটা রেখে ফ্রেশ হতে গেলাম
ফ্রেশ হয়ে রুমে আসলাম
ফোনটা নিয়ে একটু ফেইসবুকে ডুকলাম
একটু পরেই ফোনটা বেজে উঠলো
এইটা তো আম্মুর নাম্বার
ফোন রিসিভ করলাম,, আম্মু, কেমন আছিস বাবা
আমি,,হুম ভালো আম্মু তুমি
আম্মু,, তোকে ছাড়া ভালো ভালো থাকা যায়
আমি,,, আম্মু চিন্তা করো না খুব তাড়াতাড়িই চলে আসবো তোমার কাছে
আম্মু,, জানিস বাবা অবনি মেয়েটা জেনো কেমন হয়ে যাচ্চে দিন দিন
ঠিকমতো খাওয়া দাওয়া করে না
মাঝে মাঝে লুকিয়ে লুকিয়ে কান্না করে
তোকে অনেক ভালো বাসে তুই তাড়াতাড়ি ফিরে আয়
আমি,,, আম্মু অবনি আমার জন্ন কান্না করে না।
আর আম্মু,, অবনি তো আমাদের জন্য অনেক করছে
তুমি তো অসুস্থ ছিলে
পাগলিটা তোমাকে কত্ত কষ্ট করে সেবা করে সুস্থ করে তুলছে
তোমার পিচ্চি ছেলেটাকে পড়াশুনা করাইছে আর বাসার সব কাজ করছে
আচ্চা আম্মু আমরা কি মেয়েটার সুখের জন্য কিছু করতে পারিনা
যাতে অবনি সুখি থাকবে
আম্মু তোর গলা এমন ঠেকছে কেনো তুই কি কান্না করছিস
আমি,,,, না আম্মু
আম্মু,,,, তুই কি বলতে চাস বল আমাকে
আমি,,, আম্মু বলো তুমি অবনির পরে রাগ করবে না
আম্মু,,, আচ্চা করবো না বল বাবা
আমি,,, আম্মু অবনি সিয়াম কে ভালোবাসে
আমাকে কখনোই সামি হিসেবে মানে নাই
আচ্চা আম্মু আমরা কি পারিনা অবনিকে ওর সিয়ামের হাতে তুলে দিতে
এবার আম্মু কান্না করতে করতে,,,, বাবা তোর মতো ছেলে আর হয়না
আজ অবনি আসুক আমি সব বলবো আর ওকে ওর সিয়ামের হাতে তুলে
মেয়েটার কষ্ট আর দেখতে পারছিনা,,,
আমি,,, হুম আমার সুইট আম্মুটা
তুমি কোন টেনশন করো না আম্মু এখন রাখি আল্লাহাফে আম্মু,,,ওকে বাবা তুই তোর খেয়াল রাখিস
ফোনটা কেটে দিলাম
আজ আমি অনেক খুশি নিজেকে খুব হালকা লাগছে
আর অবনিকে কষ্ট দিতে চাইনা
ওকে ওর সিয়ামের হাতে তুলে দিতে চাই যেখানে ও সুখি হবে হয়তো
আমার মতো পিচ্চি হাজবেন্ড নামে কেউ থাকবে না

আজ অবনি সন্ধ্যার সময় বাড়ি ফিরছে
আম্মু নাস্তার টেবিলে বসে আছে
আম্মু,,, কিরে মা এত্তো লেইট হলো যে
অবনি,,, একটু কাজ ছিলো আম্মু
আম্মু,,, আমি বুঝি তোর কষ্টো গুলো আর মিথ্যা বলতে হবে না পাগলি মেয়ে
আমি আর কোন কষ্ট পেতে দিতে চাই না তোকে
অবনি,,, আম্মু কি বলো এই গুলা
আম্মু,, অবনির মাথায় হাত বুলাই দিতে দিতে আচ্চা মা তুই কি কাউকে ভালো বাসিস
অবনি,,, হঠাৎ এই প্রশ্ন করছো যে আম্মু
আম্মু,,, জানিস মা তোকে না নিজের মেয়ের মতই ভালো বাসি
আমার একটাবার ও মনে হয়না তুই আমার ছেলের বউ
অবনি হুম,,, আমিও তোমাকে অনেক ভালো বাসি আম্মু,,,আম্মুকে জড়াই ধরে
আম্মু,,, তোর কষ্ট গুলো আমার সহ্য হয়না
আচ্চা মা আমাকে তুই সত্যি কথা বলবি
অবনি,,হুম আম্মু
আম্মু,, আমি সব শুনছি তুই সিয়াম নামে একটা ছেলেকে ভালো বাসিস
আর কত নিজেকে কষ্ট দিবি বল মা
তুই যদি চাস সিয়ামের পরিবারের সাথে কথা বলবো দরকার হয় সিয়ামের কাছে হাত জোর করবো
তবুও তোর কষ্ট আর দেখতে পারছি না….

💘 💘 💘Misti prem MiTHUN kHAN 💘 💘 💘 💘 💘 💘 💘

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *