সিনিয়র বউয়ের জুনিয়র বর -part-6 & End

💏 সিনিয়র বউয়ের জুনিয়র বর 💏
পার্ট  -6 & End

Writer By Misti prem mithun KhAN 💏

তুই যদি চাস সিয়ামের পরিবারের সাথে কথা বলবো দরকার হয় সিয়ামের কাছে হাত জোর করবো
তবুও তোর কষ্ট আর দেখতে পারছি না….
অবনি,,, কে বল্লো এসব তোমাকে আমি সিয়াম কে ভালো বাসি
আম্মু,,,আমি শুনছি মা তুই ভয় পাসনা তুই আমার মেয়ের মতোই তোর সুখ আমার সুখ তুই বল্লে আমি কথা বলতে পারি
সিমায়ের পরিবারের সাথে
অবনি,,, আম্মুকে জড়াই ধরে কান্না করতে করতে আমি শুধু আমার পিচ্চি জামাইটারেই ভালোবাসি তোমার ছেলেকেই
কিন্তুু দেখো আম্মু পিচ্চিটা কতটা খারাপ কবে থেকে বাসায় আসে না
এত্তো গুলা দিন আমার কষ্ট পাওয়া না খেয়ে থাকা লুকিয়ে কান্না করা সব তোমার পিচ্চি শয়তান পুলার জন্য
আম্মু,,, ওই পাগলি মেয়ে আর কান্না করিস না তোর পিচ্চি বরটারে কান দইরা নিয়া আসার ব্যাবস্থা করছি
অবনি,,, না আম্মু ও আমাকে অনেক কষ্ট দিছে ওকে ও কষ্ট পাইতে হবে
আম্মু,, কিভাবে
অবনি,,, তুমি তোমার ছেলেকে ফোন করে বলে দাও সিয়ামের সাথে কাল আমার বিয়ে
আম্মু,,, বলবো কিন্তু ভেবে বলছিস তো পরে না সব উল্টা পাল্টা হইয়া যাই
অবনি,,, তুমি এত্তো টেনশন করো না তো আম্মু

আম্মু,,, আচ্চা থাম কল দিচ্চি

অপর দিকে আমি,,, মানে অবনির পিচ্চি হাজবেন্ড ফোন নিয়া গেইম খেলতে ব্যাস্ত
এর ভিতর আম্মুর ফোন
আমি,,, হ্যালো আম্মু বলো
আম্মু,,, কাল অবনি আর সিয়ামের বিয়ে তোকে অবনি আসতে বলছে
আর কাল সকালে তোর কাছে কার্ড পৌছায় যাবে
আমি কিছু না বলেই কেটে দিলাম ভিষন কষ্ট হচ্চে ইচ্চে করছে চিৎকার করে কাদতে
কিন্তুু কাদতে পারছি না চোখ দিয়ে দু ফোটা নোনা জল টুপ করে পরলো বালিশের উপর ভিষন কষ্ট হচ্চে কি জেনো হারায় ফেলছি মনে
হয়।
ইচ্চে করছে অবনিকে এই বিয়েটা করতে না করি কিন্তু কি করবো বুঝতে পারছি না অবনিটা তো সিয়ামকে ভালো বাসে
হোক না সুখি ভালোবাসার মানুষটাকে নিয়ে আমি না হয় কষ্টেই থাকি তাও তো কেউ আমার কষ্টের বিনিময়ে সুখি হবে
না আর ভাবতে পারছি না ভিষন কষ্ট হচ্চে দম যেনো বন্ধ হয়ে আসছে
যানি না রাতে কখন ঘুমায় গেছি
সকালে,,, সকালে মামাতো বোন ফারিহার ডাকে ঘুম ভাঙলো
ফারিহা,,, ওই আর কত ঘুমাবি হুম কলেজের লেট হয়ে যাচ্ছে আমি,,, তুই যা প্লিজ আমাকে ঘুমাতে দে
ফারিহা,,, আমার লেট হইয়া গেছে আগাই দিয়াই প্লিজ
আমি ফ্রেশ হয়ে বাইক নিয়া ফারিহাকে কলেজে পৌছায় দিলাম
ফারিহার,, কলেজ থেকে আসার সময় অরিন আপুর সাথে দেখা
অরিনআপু,,, ওই পিচ্চি থাম
আমি,,, আমি কিছু বলবা আপু
অরিন আপু,,, হুম এটা নে আমি এটা কি সিয়াম আর অবনির বিয়ের কার্ড আমি আপু তুমি যাচ্চো অরিন না যাবো না যে আমার ছোট পিচ্চি ভাইটারে কষ্ট দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করছে তার বিয়েতে যাবো না
অরিন আপু,,, ওই পিচ্চি তুই কষ্ট পাস না
তোর কপালে হয়তো আর কিউট একটা বউ আছে
আমি,,, আচ্চা আপু আমি আসি তাহলে অরিন আপু ওকে
আমার সব কিছু যেনো এলো মেলো হয়ে যাচ্চে কোন কিছু ভাবতে পারছি না
আচ্চা অবনিটা কি এমন না কররে পারতো না
এসব ভাবতে ভাবতে সামনে তাকাতেই দেখি একটা কার গাড়ি
চেষ্টা করেও ব্রেক ধরতে পারছিনা সোজা গিয়ে ধাক্কা লাগলো
রোডের সাইডে গিয়ে পড়লাম মাথা দিয়ে রক্ত পরছে হাত দিয়ে রক্ত বের হচ্চে আর কিছু মনে নেয়
যখন ঙ্গান ফিরলো পাশে দেখলাম অবনি বসে আছে চোখ দুটো ফোলা মনে হচ্চে কান্না করছে অনেক আম্মুকেও দেখলাম আম্মু ও
বসে কান্না করতে করতে ঘুমায় গেছে
আমি আম্মুকে ডাক দিলাম আম্মু না জোরে ডাকতে পারছি না মাথায় ব্যাথা করছে
আবার ডাক দিলাম এবার অবনি কিছুটা নড়ে উঠলো আমাকে দেখো দৌড়ে এসে জড়ায় ধরলো
আর কিছ করতে লাগলো
অবনি ওই পিচ্চি খমা কইরা দাও
আমি,,, ওই ছাড়েন পরপুরুষের গায়ে হাত দিতে লজ্জা করে না
অবনি,,, কে পর পুরুষ হুম কোন মেয়ের হাজবেন্ড তার কাছে পর পুরুষ হতে পারে না
আমি,,, আমি আপনার হাজবেন্ড না সিয়াম আপনার হাজবেন্ড কাল না আপনাদের বিয়ে করার কথা ছিলো করেন নাই
অবিনি,,, ওই পিচ্চি ওইটা তো তোমাকে কষ্ট দেওয়ার জন্য বলছি
আমি,,, হইছে আপনার কষ্ট দেওয়া আর কত কষ্ট দিবেন বলতে পারবেন
অবনি,,, আর কখনো কষ্ট দিবো না শুধু ভালোবাসবো
আমি,,, দরকার নেই কারো ভালোবাসার সরেন আমার কাছে থেকে যান তো
ডাক্তার,,, ওই আপনি এভাবে রোগিকে ডিস্টার্ব করছেন কেনো যান বসেন
ডাক্তার আমার সাথে কথা বলে চলে গেলো
আম্মু,,, কান্না করতে করতে বাবা খমা করে দিস আমাদের ভুলের জন্যই এমন হইছে
আমি,,, আরে আম্মু বাদ দাও তো আমার কিছুই ই হয়নি
আজ প্রায় ৫ দিন পর হসপিটাল থেকে রিলিজ করলো আমি রুমে শুয়ে আছি একটু পর অবনি আসলো
অবনি,, ওই পিচ্চি জামাই এই গুলা খেয়ে নাও তো কাছে বসে
আমি কোন কথা বলছি না
আমার পিচ্চি বাবুটা রাগ করছে দেখছি অবনি,,,
আমি,,,,,,,
অবনি,,ওই কি হলো কথা বলো
আমি,,,,,,,,,,,,,,
অবনি,,,আচ্ছা কথা বলা লাগবো না হা করো
আমি,,,,,,,,,,
অবনি,,,,ওই ভালো কথা কানে যাইনা তাইনা অবনির ঠোট দিয়ে আমার ঠোট দুটো বন্ধ করে দিছে
উফপপপ না দিতা পারছি বাধা হাতে তো লাগা হাত দিয়ে বাধা দিতে পারছি না
ভিষন রাগ হইয়া গেলে দিলাম একটা কামড় ঠোটে
অবনি আমাকে ছেড়ে দিলো কিন্তুু ঠোট দিয়া রক্ত পরছে না কামড় টা রাগের মাথায় জোরেই দিয়া ফেলছি
ধ্যাত আমার বউটারে তো কষ্ট দিয়া ফেল্লাম
অবনির ঠোট দিয়ে রক্ত বের হচ্চে
আবনি,,, ওই পিচ্চি বর হা করো। খাওয়াই দি
আমি,, আমি খাবো না আপনি যান
অবনি,, না খেলে যাবো না আর যদি তাও না খাস আমি আমার হাত কেটে ফেলবো
আমি,,, আচ্চা খাচ্চি আগে আপনার ঠোটে কিছু দিয়ে আসেন রক্ত পরছে
অবনি,,, ওইসব নিয়ে তোমাকে চিন্তা করা লাগবো না ওটা আমার পাপের ফল
তুমি হা করো
আমি না,,, খাবো না আগে ঠোটে কিছু দিয়ে রক্ত বন্ধ করেন তারপর
অবনি,,, আচ্ছা ২ মিনিট পর অবনি আসলে এখন আর রক্ত পরছে না
অবনি এসে হা করো,, অবনি খাওয়াই দিচ্চে আর আমি খাচ্চি

আর মনে মনে ভাবতেছি না আর মনে অভিমান করে থাকতে পারবো না। আর এটা সত্যি আপনি যাকে ভালোবাসবেন তার হাজার ভুল নিমিশেই মন থেকে মুছে যাই । আর এটাই প্রকিত ভালোবাসা।

গল্পটা আরেকটু বড় করতে চেয়েছিলাম বাট কিছু প্রবলেম এর কারনে এভাবেই শেষ করলাম যানি শেষ টা ভালো হয় নাই তার পরেও কেমন লাগলো কমেন্ট করে যানাবেন।

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *