সিনিয়র বউ পার্ট-১১ ।সিনিয়র বউ রোমান্টিক গল্প,

সিনিয়র বউ
 Part-11

বার্থডে পার্টি শেষ ,,,
সবাই চলে গেল ,,

“”” রোজা ,আম্মু আমি চলে গেলাম ,,,
“”” আমিও তোমার সাথে যাবো, ,,,
“”” না আম্মু ,, তুমি তোমার আম্মুর সাথে থাকো,,,
“”” নিয়ে যাও ও যখন যেতে চাইছে,,,
“”” আচ্ছা ,,, আব্বু আমি যাচ্ছি ,,, আংকেল চলেন,,,
“”” রোজা কি তোর সাথে যাবে ,,
“”” হুম আব্বু ,,,
“”” রুহী তাহলে তুমি ও যাও,,,
“”” আচ্ছা আব্বু ,,,,


রুহী আমি রোজা আর আংকেল চলে আসলাম ,,,
আংকেল কে রুম দেখিয়ে দিলাম ,,
এরপর রুহী আর আমি
আমার রুমে আসলাম ,,,

“”” বাপি আমি ঘুমাবো,,,
“”” রুহী ওকে ঘুমিয়ে দাও,,,
“”” বাপি আমি তোমার সাথে ঘুমাবো,,,
“”” আচ্ছা আম্মু ,, আসো,,,
“”” এই যে স্যার ,, আবার আপনি ঘুমিয়ে যাবেন না ,,,
“”” কেন,,,
“”” দরকার আছে ,,,

একটু পরে রোজা ঘুমিয়ে গেলো,,,
রুহী জানালার পাশে দাড়িয়ে বাইরে তাকিয়ে আছে ,,
আমি গিয়ে ওর কাঁধে হাত রাখলাম ,,,
রুহী কিছুটা চমকে উঠলো ,,,


“”” ও তুমি ,,,
“”” ভয় পাইছো,,,
“”” ঠিক তা না,,,
“”” এই তোমার চোখে পানি কেন,,,
“”” কই না তো,,,
“”” মিথ্যা বলবে না ,,, তুমি কান্না করছো কেন,,,
“”” কই আমি কান্না করছি না তো,,,
“”” তাহলে চোখে পানি কেন ,,,
“”” তোমায় ফিরে পেয়েছি সেই আনন্দে চোখ দিয়ে পানি এসেছে ,,
“”” তাই ,, আমি তো বলদ যা বুঝবে তাই বুঝবো,,,
“”” মানে ,,
“”” বলো কি হইছে ,,,,
“”” সত্যি বলছি কিছু হয় নি,,,

রুহী আমায় জড়িয়ে ধরলো ,,

“”” এই রোজা জেগে গেছে ,,

রুহী তাড়াতাড়ি আমায় ছেড়ে দিলো,,
এবার রোজার দিকে তাকালো,,,
কিন্তু রোজা ঘুমাচ্ছে ,,,

“”” রোজা তো ঘুমাচ্ছে ,,
“”” আমি তো শুধু শুধু বললাম ,,
“”” শয়তান একটা ,,

বলেই আমায় মারতে শুরু করলো ,,,
আমি ওকে বুকে জড়িয়ে নিলাম ,,
এখন শান্ত হয়ে গেল ,,,

মেয়েদের বুঝি শুধু এই একটা চাওয়া প্রিয় মানুষের কাছে থেকে আসীম ভালোবাসা ,,
যদি তারা এটা পায়
তবে মনে হয় সারা বিশ্ব টা জয় করে ফেলেছে ,,,


রুহীকে কোলে তুলে নিলাম,,,

“”” এই কি করছো,,,
“”” ধীরে কথা বলো,, রোজা জেগে যাবে ,,,

হঠাৎ করে কোলে তুলে নিয়েছি তো তাই অবাক হয়ে গেছে ,,,

“”” কোথায় যাচ্ছো আমায় নিয়ে ,,,
“”” ছাঁদে,,,
“”” কেন,,,
“”” চাঁদকে আমার চাঁদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো ,,,
“”” যা দুষ্টু,,,

রুহী মনে হচ্ছে কিছুটা লজ্জা পেলো,,,


ছাঁদে দোলনায় রুহী বসে আছে
আর আমি ওর কোলে মাথা রেখে শুয়ে আছি,,,

“”” আমি যে এতো দিন ছিলাম না ,, তোমার খুব কষ্ট হয়েছে তাই না ,,
“”” কই না তো,, আমি তো রোজ একটা করে মেয়ের সাথে ইয়ে করতাম ,,,
“”” মানে ,,,
“”” বোঝো না ,,, ঐ যে ঐ রাতে যা করলাম তোমার সাথে ,,
“”” কি??? ওঠ ওঠ বলছি ,,,
“”” কেন কেন,,,
“”” অন্য মেয়ের সাথে ,, সি,,,, এখন আমার কোলে মাথা রাখতে লজ্জা করছে না,,,
“”” আপনিও তো ছিলেন না,,, নিজে নিজে উল্টো পাল্টে কি যেন ভেবে চলে আসলেন,,, ভাবছিলা একবার আমার পরিবার টার কি হবে ,,,

( এবার আমি উঠে দাঁড়ালাম )

“”‘ সরি,,, আসলে তখন আমার মাথা একদম কাজ করে নি,,,
“”‘ তোমার মনে হলো চলে আসা উচিত আর তুমি চলে আসলে,, তাই তো,,,
“”” আমার মনে হচ্ছিল ,,,
“”” কি মনে হচ্ছিল ,,, আমাদের ঠকাচ্ছো,,,,
“”” হুম ,,,
“”” একটা বার তো আমায় বলতে পারতে ,, আমি কি চাই,, আমি কি তোমার দেহ চাই নাকি একটু ভালোবাসা চাই ,,, তারপর নিজেই সিন্ধান্ত নিতে ,, কিন্তু তুমি কি করেছো,, নিজের যেটা মনে হয়েছে সেটাই করেছো,,,

রুহী মাথা নিচু করে শুনছে ,,

“”” তোমার তো ভাবা উচিৎ ছিল ,, আমার পরিবারের কথা ,, ওরা তোমায় কতটা ভালোবাসতো,,, তুমি তো জানতে আমি তোমায় কতটা ভালোবাসি ,, কি বলো জানতে না,,,
“”” হুম ,,,
“””” তাহলে ভেবেছিলে একবার আমার কথা ,,,
“””” ( রুহী চুপ,, )
“”” বলো,, বলবে কিভাবে ,,, কারণ তুমি ভাবো নি ,,
ভাবলে চলে যেতে পারতে না,,,
“”” আমি তো শুধি তোমায় ঠকাতে চাই নি বলে,,,
“”” হাহাহা,,, ঠকাতে চাও নি বলে এতবড় একটা ঠগবাজদের মতো কাজ করলে,,,
“”” মানে আমি কাউকে তো ঠকাই নি,,,
“”” তুমি আমায় ঠকিয়েছো,,, আমার স্রীর ভালোবাসা পাই নি,, তুমি আমার আব্বু আম্মু কে ঠকিয়েছো,, তারা তাদের মেয়ের মতো বউমাকে পাশে পায় নি,, তার সেবা পায় নি,,, তুমি আমার মেয়েকে ঠলিয়েছো,,, ওকে ওর বাপির ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত করেছো,,,
তুমি আমাদের সবাইকে ঠকিয়েছো,,, শুধু আমাদের না তুমি নিজেকেও ঠকিয়েছো,,,

রুহী পিছনে থেকে এসে আমায় জড়িয়ে ধরলো,,,
রুহী অনেক কান্না করছে ,,,

“”” আমায় ক্ষমা করে দাও প্লিজ ,,,
“”” তোমায় কেন ক্ষমা করবো,, তোমার তো কোনো দোষ নাই,,, সব দোষ আমার,,, আমি তোমায় এতোটা ভালোবাসতে পারি যে ভালোবাসার বন্ধন দিয়ে তোমায় আমার কাছে আটকে রাখা যায়,, তাই হয়তো চলে গেছো,,,
“”” প্লিজ আমায় কাদাইও না আর,,, এই কয়েকটা বছর প্রতিটা রাত আমার না ঘুমিয়ে কেটেছে ,, সারা রাত কান্না করেছি তোমার ছবি বুকে নিয়ে ,,,

আমিও রুহীকে জড়িয়ে নিলাম ,,,

রুহী এখনো কান্না করেই যাচ্ছে ,,

“”” এই পাগলী কান্না বন্ধ করো,,,
“”” তুমি প্লিজ এসব আর বলবে না ,,
“”” আচ্ছা বাবা আর বলবো না ,,, এখন তো কান্না বন্ধ করো,,
“”” আমায় আর কাঁদাবে না প্রমিজ করো ,,
“”” তুমি যদি ইচ্ছে করে কাঁদো তাহলে সেখানে তো আমার কিছু করার নাই ,,
“”” হুম ,, চলো রুমে যাই,,
“”” কেন?? থাকি না এখানে আর কিছু সময়,,,
“”” চাঁদ তো চলে গেছে ,,
“”” কিন্তু আমার পাশের চাঁদ তো আছে ,,,
“”” ঘুমাবে না,,, কাল আবার অফিস যেতে হবে ,,
“”” ওহহ হ্যাঁ ,, চলো ঘুমাবো,,,

“””কি হলো,, দাঁড়িয়ে গেলে যে,,,
“”” আমি কি হেটে হেটে ছাঁদে এসেছি ,,,
“”” ওহহ আচ্ছা ,,,


রুহীকে কোলে নিয়ে আবার রুমে আসলাম ,,,

সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে দেখি রুহী আমার বুকের উপর শুয়ে আছে ,,
আর ওর ভেজা চুল গুলো আমার মুখের উপর ,,,

“”” চুলগুলো আমার মুখের উপর দিয়ে রাখছো কেন,,,,
“”” অনেক ডাকলাম উঠছো না তাই দিয়ে রাখছি,,,
“”” তুমি যে এমন করে শুয়ে আছো রোজা তো দেখে ফেলবে,,
“”” দেখবে না ,,,
“”” দেখবে না মানে ,, রোজা কোথায়,,
“”” আংকেল এর সাথে বাইরে খেলছে ,,,
“”” ওহহ,,
“””তাড়াতাড়ি উঠে গোসল করে রেডি হয়ে নাও ,,
“”” আচ্ছা ,,


রেডি হয়ে রোজা আমি রুহী,,, আর আংকেল চারজন একসাথে অফিসে গেলাম ,,,
এরপর আংকেল কে অফিসে রেখে রোজাকে নিয়ে রুহী আর আমি শপিং করতে গেলাম ,,
হালকা শপিং করে রেজাকে একটা স্কুলে ভর্তি করাবো,,,

বিকেল বেলা রোজা আর রুহীকে বাসায় রেখে অফিসে আসলাম ,,,

“”” কি রে বউ আর বাচ্চা কে পেয়ে অফিস কি ভুলে গেলি,,, ঐ যে সকালে গেলি কয়বার ফোন দিলাম ,,, কোনো খবর নেই ,,,
“”” আরে আংকেল সেটা না,, রোজা কে স্কুল ভর্তি করালাম ,,
“”” ওহহ,,, তো রুহীকে এখন বাসায় রাখ,, ওর চাকরি করার দরকার নেই
“”” আমিও সেটাই ভাবছি ,,, দেখি ওকে একবার বলে কি বলে,,,
“”” সেটা বল,, এদিকে নতুন পিএ এর জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে দে,,,
“””” আচ্ছা ,,,

নয়ন কে ডাকলাম

“”” স্যার আসবো,,,
“”” আসো,,, নয়ন নতুন পিএ এর জন্য বিজ্ঞাপন দাও,,
“”” ঠিক আছে স্যার ,,, কিন্তু স্যার ছেলে নাকি মেয়ে ,,,
“”” সবাই আসুক না,, এরপর একটা ছেলে চুজ করে নেয়া যাবে,, ঘরে যখন বউ আছে তখন তো আর মেয়ে রাখা যাবে না ,,
“”” এটা তুই ঠিক বলছিস,,,


অফিস থেকে বাসা আসলাম ,,
সবাই একসাথে রাতে খাওয়ার পর বসে বসে টিভি দেখছি ,,

“”” রুহী,,
“”” কিছু বলবেন আংকেল,,
“”” তুমি এখন চাকরি টা ছেড়ে দাও,,
“”” কেন আংকেল ,,
“”” দেখো রুহী রোজা এখন স্কুল যাবে ওকে নিয়ে যাওয়া নিয়ে আসা তো করতে হবে ,, ওর দিকে খেয়াল রাখতে হবে ,,, তাই আংকেল আর আমি ঠিক করলাম তুমি বাসায় থাকো,,,
“”” আমি একটু ভেবে দেখি,,
“”” আচ্ছা ,,, ,,
“”” রোজা যাও আম্মু ,, তোমার আম্মুর সাথে গিয়ে ঘুমাও,,,
“”” বাপি আমি দাদুর সাথে ঘুমাই,,,
“”” আচ্ছা আম্মু ,, আংকেল অনেক রাত হইছে ওকে নিয়ে ঘুমাতে যান ,,,
“”” চলো দাদুভাই,,,

আংকেল রোজা কে নিয়ে রুমে ঘুমাতে যাচ্ছে,,,

“”” এই সুমন আমি কিন্তু কাল চলে যাবো,,,,
“”” আংকেল কালকেই চলে যাবেন ,,
“”” হ্যাঁ মা,,,

আংকেল রুমে গেলো,,,

“”” চলো রুমে যাই ,,,
“”” তুমি যাও আমি আসছি ,,

টিভিতে একটা প্রোগ্রাম দেখছি
তাই রুহী কে ঘুমাতে যেতে বললাম ,,,
কিন্তু ও এসে আবার আমার পাশে বসলো,,,


“”” ঘুমাবে না ,,
“”” তোমার সাথে ঘুমাবো ,,,
“”” ওহহ,,, তো কি ভাবলা,,,
“”” কোন বিষয়ে,,,
“”” চাকরি,,, আমি চাইলে তোমায় বাসায় রাখতে পারবো,,, কিন্তু আমি চাইছি তোমার সিন্ধান্ত তুমি নিজেই নাও,,,
“”” আমি সিন্ধান্ত নিয়েছি ,,,,

আমি অনেক আগ্রহ নিয়ে জানতে চাইলাম ,,
ভেবেছিলাম হয়তো বলবে চাকরি করবে না ,,,

“”” তাই ,, কি সিন্ধান্ত নিলে ,,,
“”” আমি চাকরি করবো,,,
“”” কিন্তু কেন???
“”” রোজা বাসায় থাকবে না তুমি থাকবে না ,, একা একা আমি বাসায় কি করবো,,,
“””” ওহহ,, তো তুমি অফিসে গিয়ে কি করবে ,,
“”” তোমার সাথে থাকবো,,, অফিস দেখা শোনা করবো,,
“”” ওহহ,,, আচ্ছা চলো ঘুমাই,,
“”” হুম ,, চলো,,,


পরের দিন সকাল বেলা
আজ রোজার স্কুলে প্রথম দিনে,,,,
ওকে তাড়াতাড়ি রেডি করিয়ে নিয়ে আমি গিয়ে ওকে স্কুলে দিয়ে আসলাম,,,
এরপর বাসায় এসে আংকেল আর রুহীকে নিয়ে অফিসে গেলাম ,,,

অফিসে এসে রুহী সরাসরি আমাদের ক্যাবিনে গেলো,,
আমি আর আংকেল অফিস ক্যান্টিনে আসলাম ,,,

“”” কি হলো,, আমায় এখানে নিয়ে আসলি,,, কারণ কি,,,
“”” রুহী নাকি অফিসে থাকবে,,,
“”” মানে,,
“”” রুহী চাকরি করবে ,,
“” তো ভালো তো,, দুজন একসাথে অফিস করবি,,,
“”” আপনার মাথা ,,,
“”” কেন,,
“”” এতো সুন্দরী একটা বউ পাশে থাকলে কাজে মন বসবে ,,,
“”” ওহহ,, এই ব্যাপার,,,
“”” হুম ,,
“” তো কি করবি,, কিছু ভাবলি,,,
“”” হুম ,, কাল রাতেই ভেবে রেখিছি,,,
“”” কি ভাবলী???
“”” এমন কিছু করতে হবে যাতে রুহী নিজেই চাকরী ছেড়ে দেয়,,,
“”” কি এমন করবি??
“”” ওকে জ্বালাবো,,,
“”” কিন্তু কিভাবে ???

আমি নয়নকে ফোন দিলাম ,,,

“” হ্যালো স্যার,,
“”” নয়ন তুমি কি অফিসে আসছো,,
“”” হ্যাঁ স্যার ,,
“”” তাহলে এখুনি একটু অফিসের ক্যান্টিনে আসো তো,,,
“”” ওকে স্যার ,,,


আংকেল আর আমি এসব নিয়ে কথা বলছি ঠিক সেই সময় নয়ন আসলো,,,

“”” নয়ন আসছো,,
“”” বলেন স্যার ,,
“”” বসো,,,
“”” কিছু বলবেন স্যার ,,,
“”” তুমি কি বিজ্ঞাপন দিছো,,
“””একটু পরে যাবো,,
“”” আচ্ছা ,,, ভাইভা ডেট তাড়াতাড়ি দিবে ,,
“”” ঠিক আছে স্যার ,,, ,,


নয়ন চলে গেল ,,
আংকেল শুধু আমার দিকে হা করে তাকিয়ে আছে ,,,

“”” কি করছিস তুই ,,,
“”” একটা সুন্দরী দেখে পিএ নিয়োগ দিবো,,,
“”” কেন,,,
“”” এতো কেন কেন করবেন না তো,,,
“”” তো কি করবো,,,
“”” আমি রুহীর সামনে যা বলবো আপনি শুধু হ্যাঁ হ্যাঁ বলবেন ,,, বুঝছেন ,,,
“”” হুম ,,, তারমানে তুই আমার কাঁধে বন্দুক রেখে শিকার করবি,,,
“” তো কি করবো,, অনেক দিন পর বউকে কাছে পেয়ে আবার হারাবো নাকি,,,


এবার আংকেল আর আমি কেবিনে আসলাম ,,,
রুহী একা একা বসে কি যেন একটা দেখছে ,,
আমি অফিসে আসছি থেকে দেখছি ও রোজ এমন মনোযোগ দিয়ে কি যেন একটা দেখে,,,
আমি রুহীর সামনে গেলাম,,
রুহী আমায় দেখে তাড়াতাড়ি লুকিয়ে ফেললো ,,,

“”” কি ছিলো এটা ,,
“”” কিছু না ,,,
“”” দেখাও আমায়,,,
“”” বললাম তো কিছু না ,,,

আমি জোর করে ঐ জিনিস টা নেয়ার চেষ্টা করছি ওকে জড়িয়ে ধরে ,,,

“”” কি করছো আংকেল আছে তো,,,

“”” আংকেল আপনি একটু অফিস টা ঘুরে আসুন তো,,,
“” আমি এমনিতেই যেতাম ,, তোরা যা শুরু করছিস ,,, একটু লজ্জা কর,, আমি তোদের সিনিয়র ,,,
“”” আমি কি আন্টিকে ফোন দিবো,,,
“”” না থাক,, আমি যাচ্ছি ,,,

আংকেল বাইরে গেলো,,,
আমি কেবিনের দরজা লক করে আসলাম ,,,

“”” আংকেল কি না কি ভাবলো,,,
“”” সেটা তোমার না ভাবলেও চলবে ,,

আবার ওকে জড়িয়ে ধরলাম ,,
ওকে পিছনে থেকে জড়িয়ে ধরে ওর হাত থেকে জিনিস টা নেয়ার চেষ্টা করছি ,,
দেখে তো মনে হচ্ছে এটা একটা পিক,,
কিন্তু কার??
সেটাই দেখতে হবে ,,,

আমার কেবিনে একপাশে সোফা আছে ,,
রুহীকে কোলে নিলাম ,,

“”” কি করছো??? এটা অফিস ,,
“”” জানি এটা অফিস ,, আর তুমি আমার পিএ এটাও জানি,,, কিন্তু ওটা আমায় দেখতে হবে,, সেটা যে করেই হোক,,
“”” তাই ?? এবার দেখো,,, কিভাবে দেখবে ,,,
“”” কে আছে এমন যার পিক তুমি বুকে রাখলে ,,
“”” তোমায় বলবো কেন?? এবার কেমনে দেখবা তুমি ,

রুহীকে সোফায় শুইয়ে দিলাম ,,

“”” তুমি ভুলে যাচ্ছো আমি তোমার স্বামী ,, আর ওটা বের করা আমার কোন ব্যাপারেই না,,,
“”” এই না না,,, ,,
“”” তাহলে দেখাও,, কে ওটা,,,
“”” আচ্ছা দেখাচ্ছি বাবা,,

রুহী পিকটা বের করলো,,,


( গল্পে হয়তো একটু Adult কথা ব্যবহার করছি ,, এরজন্য দুঃখিত ,,, সমস্যা হলে কমেন্ট করবেন ,, কিন্তু ভাইয়া এবং আপু কোনো বাজে মন্তব্য করবেন না ,, )
আপনারা যেমন গল্প পড়ে মজা পান,, তেমনি আমি আপনাদের কমেন্ট গুলো পড়ে মজা পাই,, তাই প্লিজ nc nxt কমেন্ট না করে interesting comment করবেন প্লিজ ,,
.
..

….
সিনিয়র বউ Part-12

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *